পৌরানিক কাহিনীমহাভারত

কেন কুন্তীসহ সমগ্র নারী জাতিকে অভিশাপ দিয়েছিলেন যুধিষ্ঠির?

কুরুক্ষেত্র যুদ্ধের অবসানে বেঁচে ছিলেন মুষ্টিমেয় কয়েকজন। যুধিষ্ঠির সহ পঞ্চপাণ্ডবদের ঘিরে আবর্তিত হচ্ছে স্বজন হারানোর ব্যথা এবং স্বজন বধের অপরাধ। যুদ্ধ অন্তে তারা একমাসব্যাপী গঙ্গার তীরে অবস্থান করেছিলেন। মুনি-ঋষিগণ এসে তাঁদের স্বজন হারানোর ব্যথা প্রশমিত করতেন। 

একদিন দেবর্ষি নারদ যুধিষ্ঠিরের মানসিক অবস্থা ও স্থিতির সন্ধানে এলেন। তিনি যুধিষ্ঠিরকে বললেন, মহাপাপী দুর্যোধন বধ হওয়াতে তিনি কি সন্তুষ্ট নন?

উত্তরে যুধিষ্ঠির বললেন, ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আশীর্বাদে তিনি এই পৃথিবীর অধিশ্বর হতে পেরেছেন ঠিকই, কিন্তু পরিবার পরিজন হারানোর শোকে তিনি কাতর। অভিমন্যু সহ দ্রোপদী ও পঞ্চপাণ্ডবের অন্য স্ত্রীদের সন্তান হারানোর এই শোক কোনভাবেই সহ্য করা যাচ্ছেনা। এ যেন জয় নয়, এ হলো পরাজয়।

আরো পড়ুনঃ সত্যবতী কীসের প্রলোভনে পরাশর মুনির মিলন প্রস্তাবে রাজি হয়েছিলেন?

এছাড়া মাতা কুন্তীর কাছে তিনি জেনেছেন, কর্ণ আসলে তাঁদের জ্যৈষ্ঠ ভ্রাতা। জননীর কাছ থেকে এ সত্যিটা জেনে যুধিষ্ঠিরের মনে হচ্ছিল যেন তাঁর অঙ্গপ্রত্যঙ্গে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়েছে। সেই যন্ত্রণা তিনি আর সহ্য করতে পারছেন না।

কর্ণের জন্য বিলাপরত যুধিষ্ঠির বলেন, তিনি কষ্ট পাচ্ছেন এই ভেবে যে, মৃত্যুর সময় কর্ণ জানতেন তিনি আপন সহোদরের হাতে মৃত্যুবরণ করছেন। কিন্তু পাণ্ডবরা জানতেন না তারা এক কৌন্তেয়কে বধ করছেন। 

সমগ্র মহাভারতজুড়ে ট্র্যাজেডির অভাব নেই। কর্ণের মৃতদেহের কাছে শোকবিলাপরত কুন্তীকে দেখে হৃদয়বিদীর্ণ হয়ে যায়। জন্মদাত্রীকে ওই অবস্থায় দেখে থমকে গিয়েছিলেন পঞ্চপাণ্ডব। তখন যুধিষ্ঠির আপন মাকে বলেছিলেন, এইভাবে বিলাপ করলে তা অর্জুনের জন্য অসম্মানজনক। কেননা তিনিই কর্ণকে বধ করেছেন।

যুধিষ্ঠির

আরো পড়ুনঃ অপ্সরা তিলোত্তমার রূপে-গুণে পাগল হয়ে যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছিলেন যে দুই দেবতা!

এর উত্তরে পঞ্চপাণ্ডব যা শুনলেন, তাঁর জন্য তারা মোটেই প্রস্তুত ছিলেন না। তারা জানতে পারলেন কর্ণ রাধেয় নন, তিনি কৌন্তেয়, তাঁদের জ্যৈষ্ঠ ভ্রাতা। কুন্তী শোকাতুর যুধিষ্ঠিরকে বোঝানোর চেষ্টা করলেন যে, তিনি নিজে এবং স্বয়ং শ্রীকৃষ্ণও কর্ণকে পাণ্ডবপক্ষে আনতে পারেন নি। সব শুনেও যুধিষ্ঠির স্থির হতে পারছিলেন না।

শোকাহত যুধিষ্ঠির মুহূর্তের ক্রোধে কুন্তীসহ সমগ্র নারীজাতিকে অভিশাপ দিয়ে বসলেন। তিনি অভিশাপ দিলেন, আজ থেকে কোন নারী কোন কথা গোপন করতে পারবেন না। অর্থাৎ কোন গোপন কথা মেয়েদের পেটে চাপা থাকবেনা।

আরো পড়ুনঃ জেনে নিন কার ভুলে পৃথিবীতে শুরু হয়েছিল ঘোর কলি যুগ?

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
error: Content is protected !!