Featuredবাংলা পঞ্জিকা ১৪২৯

অক্ষয় তৃতীয়া ২০২২ কবে? Akshaya Tritiya 2022 Date in Bengali

বৈদিক বিশ্বাস অনুসারে, অক্ষয় তৃতীয়ার পবিত্র তিথিতে কোন শুভকার্য সম্পন্ন হলে তা অনন্তকাল ধরে অক্ষয় হয়ে থাকে।

২০২২ অক্ষয় তৃতীয়া তারিখ ও সময়সূচি

বাংলা তারিখইংরেজী তারিখদিন
১৯ বৈশাখ ১৪২৯০৩ মে ২০২২মঙ্গলবার

অক্ষয় তৃতীয়া কেন পালন করা হয়?

অক্ষয় তৃতীয়া হল চান্দ্র বৈশাখ মাসের শুক্লা তৃতীয়া অর্থাৎ শুক্লপক্ষের তৃতীয়া তিথি। সনাতন ধর্ম ও জৈন ধর্ম উভয় ধর্মের কাছেই এই তিথি বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। এই শুভ তিথিতেই জন্মগ্রহণ করেছিলেন ভগবান বিষ্ণুর ষষ্ঠ অবতার পরশুরাম। এই দিনেই মহাভারত রচনা শুরু করেছিলেন বেদব্যাস ও গণেশ। সত্য যুগের অবসানের মাধ্যমে ত্রেতা যুগের সূচনা হয় এই তিথিতেই। এদিনই রাজা ভগীরথ দেবী গঙ্গাকে মর্ত্যে নিয়ে এসেছিলেন।

এই তিথিতেই কুবেরের তপস্যায় সন্তুষ্ট হয়ে ভগবান শিব তাকে অতুল ঐশ্বর্য প্রদান করেন। এই দিনেই কুবের লক্ষ্মী লাভ করেছিলেন বিধায় দিনটিতে বৈভব-লক্ষ্মীর পূজা করা হয়।

অক্ষয় তৃতীয়া থেকেই পুরীধামে জগন্নাথদেবের রথযাত্রা উপলক্ষে রথ নির্মাণ শুরু হয়।

আরো জানুনঃ ১৪২৯ সালের অন্নপ্রাশনের তারিখ ও সময়সূচী

অক্ষয় শব্দের অর্থ হল যা ক্ষয়প্রাপ্ত হয় না। বৈদিক বিশ্বাস অনুসারে, অক্ষয় তৃতীয়ার পবিত্র তিথিতে কোন শুভকার্য সম্পন্ন হলে তা অনন্তকাল ধরে অক্ষয় হয়ে থাকে। অক্ষয় তৃতীয়াতেই কেদার-বদ্রী-গঙ্গোত্রী-যমুনোত্রী অর্থাৎ চারধামের যে মন্দিরগুলো ছয়মাস বন্ধ থাকে, এইদিনেই তার দ্বার উদঘাটন হয়। দ্বার খুললেই দেখা যায় সেই অক্ষয়দীপ যা ছয়মাস আগে জ্বালিয়ে আসা হয়েছিল।

আধুনিককালে এই তিথিতে সোনার বা রূপার গয়না কেনা হয়। মনে করা হয়, এই শুভ তিথিতে রত্ন বা জিনিসপত্র কিনলে গৃহে শুভ যোগ হবে। সুখ-শান্তি ও সম্পদ বৃদ্ধি হবে, এই আশাতেই এদিন মানুষ কিছু না কিছু কিনে থাকেন।

আরো জানুনঃ ১৪২৯ সালের সাধভক্ষণের সঠিক তারিখ ও সময়সূচী

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
error: Content is protected !!