আচার ও সংস্কার

সৌভাগ্যকে নিজের কাছে বেঁধে রাখতে পবিত্র ভাদ্র মাসে এই কাজগুলি করুন

বাংলা পঞ্জিকা অনুসারে ৫ম মাস ভাদ্র। হিন্দু পঞ্জিকা অনুযায়ী চারটি পবিত্র মাসের মধ্যে ভাদ্র মাস অন্যতম। এই মাসেই শুরু হয় শরৎকাল। সনাতন শাস্ত্র অনুযায়ী ভাদ্র মাসে বিশেষ কিছু কাজ করলে পরিবার ও কর্মক্ষেত্রে সৌভাগ্য বয়ে নিয়ে আসে।

চলুন দেখে নেয়া যাক, ভাদ্র মাসে কোন কাজ করলে সৌভাগ্যের দ্বার খুলে যায়।

১. ভাদ্র মাসে ঋষি পঞ্চমী পালিত হয়। সনাতন ধর্মের সপ্ত ঋষিকে উদ্দেশ্য করে এই তিথি পালন করা হয়। নেপালের সনাতন হিন্দু ধর্মানুসারীরা বেশ গুরুত্বের সঙ্গে এই দিনটি পালন করে থাকেন। এই উৎসব নেপালের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব। এ উপলক্ষে নেপালে ঋষি স্নানের আয়োজন করা হয়।

আরো পড়ুনঃ একজন নারী কী গুরু হতে পারেন? নারীরা কী দীক্ষা দান করতে পারেন?

২. পঞ্চগব্য সনাতন ধর্মের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ও পবিত্র বস্তু। ভাদ্র মাসে পঞ্চগব্য সেবন অতি পবিত্র কাজ বলে মনে করা হয়। সঠিক পরিমাণ পঞ্চগব্য সেবনে দেহ ও মন পবিত্র থাকে।

৩. ভাদ্র মাস ভগবান শ্রীকৃষ্ণ ও রাধার জন্ম মাস। এ মাসে জন্মাষ্টমী ও রাধাষ্টমী ব্রত পালন করলে ভগবান শ্রীকৃষ্ণ ও শ্রীরাধার আশীর্বাদে জীবনে শান্তি আসে।

৪. ভাদ্র মাসে গুরুপাক জাতীয় খাবার খাওয়া উচিত নয়। এই মাসে মশলাদার ও উত্তেজক খাদ্য ও পানীয় গ্রহণ করা একদম উচিত নয়।

৫. ভাদ্র মাসে পালিত হয় গণেশ চতুর্থী। পশ্চিম ভারতসহ সমগ্র ভারতেই এই দিনটি মহাসমারোহে পালন করা হয়।

আরো পড়ুনঃ উত্তর ও পশ্চিম ভারতের বিখ্যাত ৮টি কৃষ্ণ মন্দির দর্শন করুন

৬. ভাদ্র মাসে পালিত হয় অজা একাদশী। এই একাদশী অত্যন্ত পবিত্র। এই একাদশী সঠিকভাবে পালন করলে ভগবান বিষ্ণুর সুদৃষ্টি লাভ করা যায়।

৭. ভাদ্র মাসকে ‘শূন্য’ মাস বলা হয়। প্রাচীন কৃষি সভ্যতায় এই মাসে ধান কাটা হত। কৃষি কাজ প্রায় বন্ধ থাকত। তাই এই মাসে কোনও মাঙ্গলিক কাজ করা উচিত নয়।

আরো পড়ুনঃ সিঙ্গাপুরের শীর্ষ ১০ হিন্দু মন্দির

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
error: Content is protected !!